আজ || শনিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২৩
শিরোনাম :
  জরায়ু ক্যান্সার প্রতিরোধে গোপালপুরে বিনামূল্যে টীকা পাবে সাড়ে নয় হাজার কিশোরী ও যুবতী       রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আজগর আলীর দাফন সম্পন্ন       গোপালপুরে অগ্নি সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে শান্তি সমাবেশ       গোপালপুরে শিশু ধর্ষন অপচেষ্টা; ভিক্টিমের বাড়িতে প্রাণনাশের হুমকিতে আদালতে প্রসিকিউশন       গোপালপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইসচেয়ারম্যান লতিফ সিটি আর নেই       প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ       গোপালপুরে দৈনিক মজলুমের কন্ঠ’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত       গোপালপুর হাসপাতালের নিরাপত্তা রক্ষীকে নির্দয়ভাবে পিটিয়েছে সন্ত্রাসীরা; থানায় মামলা       গোপালপুর প্রেসক্লাবের সহসভাপতি খন্দকার আব্দুস সাত্তার আর নেই       গোপালপুরে শিশু ধর্ষণচেষ্টা: বাদীকে স্কুল কমিটির সভাপতি ও আইনজীবীর হুমকি    
 


নাছিরের ব্যাটে ছড়ে ২৯ রানের লিড

টাইমস স্পোটস – দ্বিতীয় ইনিংসে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাট করতে নেমে ১২ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে ৪৭ রান করে। আগের ওভারে সোহাগ গাজীকে ছক্কা হাঁকানো গেইল রুবেল হোসেনের ষ্ট্যাম্পে আসা বল সেভ করতে গিয়ে ব্যাটের কানায় লেগে উইকেট কিপারের হাতে ১৯ রান করে ক্যাচ আউট হয়।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৪ উইকেটে ৫২৭ রান নিয়ে নিজেদের প্রথম ইনিংস ঘোষণা করেছিল । তবে ক্যারিবীয়দের স্বস্তি দেননি বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানরা।চতুর্থ দিনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংস ছাপিয়ে ২৯ রানের লিড নেয় বাংলাদেশ।
মিরপুর টেস্টের চতুর্থ দিনে এসে আজ ৫৫৬ রানে প্রথম ইনিংস শেষ হয় বাংলাদেশের। আগের দিন অপরাজিত থাকা নাসির হোসেন অল্পের জন্য সেঞ্চুরির দেখা পাননি। আউট হন টেস্টে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৯৬ রানে। আরেক ব্যাটসম্যান মাহমুদউল্লাহ ফেরেন ৬২ রানে।
ভালো অবস্থানে থেকে ৪ উইকেটে ৪৫৫ রান নিয়ে আজ দিনের খেলা শুরু করেছিল বাংলাদেশ। দলীয় ৪৮৯ রানে মাহমুদউল্লাহ-নাসিরের ১২১ রানের জুটি ভাঙেন সুনীল নারাইন। নারাইনের একই ওভারে বোল্ড হন অভিষেক টেস্ট খেলা সোহাগ গাজী (৪)। দলের এ অবস্থায় এক প্রান্ত আগলে রেখে খেলতে থাকেন নাসির, সফলও হয়েছেন। তবে শেষ পর্যন্ত একটা আক্ষেপ নিয়ে ফিরতে হয় তাঁকে—মাত্র ৪ রানের জন্য সেঞ্চুরি না পাওয়ার আক্ষেপ।
আজ থেকে সাত বছর আগে নিজেদের গড়া টেস্টে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড ভেঙেছে বাংলাদেশ। এর আগে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ সংগ্রহ ছিল ৪৮৮ রান। ২০০৫ সালে চট্টগ্রামে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে গড়েছিল রেকর্ডটি।

প্রথম ইনিংস

ওয়েস্ট ইন্ডিজ- ৫২৭/৪ ডিঃ

বাংলাদেশ- ৫৫৬/১০

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের তৃতীয় দিনের শেষে ৬ উইকেটে ৪৫৫ রান করেছে বাংলাদেশ।

এক প্রান্তে নাসির হোসেন ৩৩ ও অন্য প্রান্তে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ৪২ রানে ব্যাট করছেন।

সাজঘরে ফিরে গেছেন মুশফিকুর রহিম (৪৩), নাঈম ইসলাম (১০৮) ও সাকিব আল হাসান (৮৯)।

বৃহস্পতিবারের প্রথম সেশনে কোনো উইকেট না হারিয়ে ৮৮ রান যোগ করে বাংলাদেশ। দ্বিতীয় সেশনে সাকিবের উইকেট হারিয়ে যোগ করে আরো ৯৭ রান।

ব্যক্তিগত ২৬ রানে রবি রামপলের বলে একটা সুযোগ দিয়েছিলেন সাকিব। উইকেটরক্ষকের কাছে ক্যাচ দিয়েও ‘নো’ বলের কল্যাণে বেঁচে যান টেস্ট র‍্যাংকিং শীর্ষ এই অলরাউন্ডার।

রামপলের বলেই শেষ পর্যন্ত সাকিব সাজঘরে ফিরলে চতুর্থ উইকেটে নাঈমের সঙ্গে তার ১৬৭ রানে রেকর্ড জুটি ভেঙ্গে যায়। আগের রেকর্ডটিও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেই ছিল। ২০০৪ সালের জুনে কিংস্টনে হাবিবুল বাশার সুমন ও মানজারুল ইসলাম রানা গড়েছিলেন ১২০ রানের জুটি।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ৩ উইকেটে ১৬৪ রান নিয়ে দিনের খেলা শুরু করে বাংলাদেশ। সে সময় নাঈম ২৭ ও সাকিব ১৬ রানে ব্যাট করছিলেন।

এর আগে দ্বিতীয় দিনের চা-বিরতিতে যাওয়ার সময় অতিথিরা ৪ উইকেটে ৫২৭ রানে ইনিংস ঘোষণা করে। [এমটি/বিটি/০৫:০০]

 

মন্তব্য করুন -


Top
error: Content is protected !!