আজ || রবিবার, ১২ জুলাই ২০২০
শিরোনাম :
  ভালো নেই গোপালপুরের বই ব্যবসায়ীরা       শিক্ষা বান্ধব ইউএনও সাঈকা সাহাদাত       চিরতরে চলে গেলেন ‘প্লেব্যাক সম্রাট’ এন্ড্রু কিশোর       গোপালপুরের সেই ঝুঁকিপূর্ণ সেতুতে আবারো পারাপার বন্ধ ঘোষণা       যমুনা নদীতে নিখোঁজ গোপালপুরের শিশু খায়রুলের মরদেহ উদ্ধার       গোপালপুরে গরুর খামারে অগ্নিকান্ড; ধারণা ৫ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি       গোপালপুরে এমপি’র নানামুখী উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন       গোপালপুরে বিট পুলিশিং কার্যক্রম শুরু; কার্যালয় উদ্বোধন       গোপালপুরে স্কুল ও মাদ্রাসার নতুন ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন       আজ শুক্রবার থেকে ২০১ গম্বুজ মসজিদে পুনরায় জুমা নামাজ শুরু    
 


গোপালপুরে স্ত্রীকে আগুনে পুঁড়িয়ে হত্যাচেষ্টার মামলায় স্বামী গ্রেফতার

ফলোআপ

কে এম মিঠু, গোপালপুর :
টাঙ্গাইলের গোপালপুরে দক্ষিণ পাথালিয়া গ্রামে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে অমানুষিক নির্যাতনের পর গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুনে পুঁড়িয়ে হত্যাচেষ্টা মামলার একমাত্র আসামী পাষন্ড স্বামী আইয়ুব নবীকে অবশেষে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গোপালপুর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মোস্তাফিজুর রহমান জানান, গত ২১ এপ্রিল ওই নৃশংস ঘটনার পর থেকেই সে পলাতক ছিল। বুধবার বিকালে গোপন সুত্রে খবর পেয়ে আসামী আইয়ুব নবীকে উপজেলার ঝাওয়াইল বাজার থেকে থানা পুলিশ গ্রেফতার করে। পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, তিন সন্তানের জননী শান্তা আকতারকে (৩০) যৌতুকের জন্য স্বামী আইয়ুব নবী প্রায়ই নির্যাতন করতেন। গত ২১ এপ্রিল শান্তা যৌতুকের টাকা এনে দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে তাকে অমানুষিক মারধোর করা হয়। এক পর্যায়ে তার গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুনে পুঁড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করে স্বামী। স্ত্রীর ডাকচিৎকারে পাড়াপড়শিরা এসে তাকে উদ্ধার করে। প্রতিবেশিদের উপস্থিতি টের পেয়ে আইয়ুব পালিয়ে যায়। মুমূর্ষ অবস্থায় তার স্ত্রীকে প্রথমে গোপালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। পরে টাঙ্গাইল সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে ঢাকাস্থ শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সষ্টিটিউটে স্থানান্তরের কথা বলা হয়।

এদিকে শান্তার ভাইয়েরা খুবই দরিদ্র হওয়ায় ঢাকায় নিয়ে চিকিৎসার সামর্থ ছিলনা। পরে গোপালপুর থানার ওসি মুস্তাফিজুর রহমান তার চিকিৎসার ব্যয়ভার বহণের দায়িত্ব নেন। শান্তা ঢাকার শেখ হাসিনা বার্ণ ইন্সটিটিউটে এখনো চিকিৎসা নিচ্ছেন।

ইতিমধ্যে ওসি মুস্তাফিজুর রহমান গত ৭ মে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আইসোলেসনে চলে যান। তবুও শান্তার চিকিৎসার খরচ চালিয়ে যান। করোনামুক্ত হয়ে তিনি গত সোমবার কাজে যোগদান করেন।

চলিত সপ্তাহে শান্তা পুরোপুরি সুস্থ হওয়ার কথা জানিয়েছে কর্তব্যরত চিকিৎসারা। ঢাকার শেখ হাসিনা বার্ণ ইন্সটিটিউটে চিকিৎসা শেষে নিজ দ্বায়িত্বে শান্তাকে তার ঘরে পৌঁছে দিবেন বলেও জানান ওসি।

Comments

comments


Top
error: Content is protected !!