আজ || মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০
শিরোনাম :
  আজ ঈদের দিনে এছহাকের বাড়িতে শোকের মাতম       গোপালপুরের হেমনগরে আওয়ামীলীগ নেতার ঈদ উপহার বিতরণ       গোপালপুরে এমপি ছোট মনির কর্তৃক ১২০০ কর্মহীন শ্রমিকের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ       গোপালপুরে জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ উপলক্ষে ১৫০টি হতদরিদ্র পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ       গোপালপুরে মসজিদ প্রতি ৫০০০ টাকাসহ ইমাম-মুয়াজ্জিনকে এমপির ঈদ উপহার প্রদান       গোপালপুর ও মধুপুরে ৩০০ পরিবারে সহপাঠীদের খাদ্যসামগ্রী বিতরণ       গোপালপুরে এসএসসি ৮৯ ব্যাচ কর্তৃক ৮০০ পরিবারে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ       গোপালপুরে ৩০০০ কর্মহীন শ্রমিকের মাঝে এমপি ছোট মনিরের খাদ্যসামগ্রী বিতরণ       করোনা দূর্যোগে পুলিশের ভূমিকা এবং প্রাপ্তি; প্রেক্ষিত বাংলাদেশ       গোপালপুরের বড়খালিতে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা    
 


সাহাপুর গ্রামের সেই সুচিত্রার পাশে টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসক

কে এম মিঠু, গোপালপুর :
রাজশাহী মেডিকেল কলেজে চান্স পাওয়া গোপালপুর উপজেলার সাহাপুর গ্রামের সেই মেধাবী শিক্ষার্থী সুচিত্রা রাণীর শিক্ষার পুরো খরচ বহণ করতে পাশে দাড়ালেন টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসক মো. শহীদুল ইসলাম।
আজ মঙ্গলবার গোপালপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে জেলা প্রশাসক সুচিত্রার পড়ালেখার সমগ্র ব্যয় বহণের ঘোষণা দিয়ে শিক্ষাউপকরণ ক্রয়ের জন্য সুচিত্রার হাতে নগদ ৩৫ হাজার টাকা তুলে দেন।
এ সময় জেলা প্রশাসক ছাড়াও সুচিত্রা রাণী, তার মা মুক্তি রাণী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিকাশ বিশ্বাস, সহকারি কমিশনার (ভূমি) গোলাম রেজা মাসুম প্রধান, প্রেসক্লাব সভাপতি অধ্যাপক জয়নাল আবেদীনসহ স্থানীয় মিডিয়াকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
জেলা প্রশাসককে সুচিত্রা জানান, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে গত মে মাসে তার বাবা বিনা চিকিৎসায় অকাল প্রয়ান ঘটে। এজন্য তার স্বপ্ন জীবনে কার্ডিওলজি নিয়ে সে উচ্চশিক্ষা গ্রহন করে, গ্রামের অসহায় মানুষদের সেবা প্রদান করবে।
উল্লেখ্য, পিতৃহারা সুচিত্রাদের বাড়িভিটা ছাড়া কোন জমাজমি নেই। মা মুক্তি রাণীর ছোট একটি পোল্ট্রি খামারই তাদের রোজগারের একমাত্র উৎস। তা দিয়ে কোনভাবে খাবার জুটলেও মেডিকেলে পড়ার খরচ নিয়ে দুর্ভাবনায় ছিলেন মা মুক্তিরাণী।

Comments

comments


Top
error: Content is protected !!